কধুরখীল জলিল আম্বিয়া কলেজ

কধুরখীল জলিল আম্বিয়া কলেজ:

কধুরখীল গ্রামের সাধারণ জনগন এবং এলাকার দরিদ্র জনসাধরনের শিক্ষার উন্নতি কল্পে গ্রামের বিদ্যোৎসাহী ব্যক্তির শিক্ষা উন্নয়ন চিন্তার ফল স্বরূপ এই গ্রামে প্রতিষ্ঠিত হয় কধুরখীল জলিল আম্বিয়া কলেজ। গ্রামের শিক্ষাবিদ বুদ্ধিজীবী ধনাঢ্য ব্যক্তি ব্যবসায়ীসহ সর্বধরনের পেশার লোকের উন্নত চিন্তা ধারা ও মুক্ত ধারার বহিঃপ্রকাশ ১৯৭০ সালে প্রতিষ্ঠিত হয় কধুরখীল জলিল আম্বিয়া কলেজ। প্রতিষ্ঠা লগ্নে অর্থ সংকট নিরসরেন লক্ষ্যে প্রস্তাব আসে গ্রামের ধনী ও ব্যবসায়ী এবং বিদোৎসাহী লোকের সন্ধান ও একদা এক সভায় মিলিত হয়ে বিপুল উৎসাহ উদ্দীপনার মধ্যে দিয়ে প্রস্তাব আসে আলহাজ্ব জলিল বক্স সওদাগরের নাম এবং সভায় সওদাগর সাহেবের সম্মতি পাওয়া গেল, শুরু হল স্থান নির্বাচন। পরবর্ত্তী সভায় বর্তমানে প্রতিষ্ঠিত জায়গায় কলেজে প্রতিষ্ঠার সর্বসম্মত সিদ্ধান্ত গৃহীত হল। গ্রামের ডাক্তার রবীন্দ্র লাল চৌধুরীর বাড়ি ভিটা অত্যন্ত খুশি মনে ছেড়ে দিল যার মূল্য আলহাজ্ব জলিল বক্স সওদাগর শোধ করে দিলেন। পরবর্ত্তীতে তিনি উক্ত জায়গা কলেজের নামে রেজিষ্ট্রি করে দান করে দিলেন। বর্তমানে কলেজে ০৪(চার)টি ভবনসহ মানবিক, বিজ্ঞান ও ব্যবসায় শিক্ষা শাখায় পাঠদান যথানিয়মে চলছে।